এলাকা জুড়ে যত্রতত্র গজিয়ে উঠছে লাইসেন্স ছাড়া বেআইনি ওষুধের দোকান। সেখান থেকে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ বিভিন্ন ওষুধ

এলাকা জুড়ে যত্রতত্র গজিয়ে উঠছে লাইসেন্স ছাড়া বেআইনি ওষুধের দোকান। সেখান থেকে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ বিভিন্ন ওষুধ

মালদা ১৪ফেব্রুয়ারী: এলাকা জুড়ে যত্রতত্র গজিয়ে উঠছে লাইসেন্স ছাড়া বেআইনি ওষুধের দোকান। সেখান থেকে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ বিভিন্ন ওষুধ। রমরমিয়ে চলছে ব্যবসা। ভয়ঙ্কর ক্ষতির মুখে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে’ যুব সমাজকে। অবশেষে পদক্ষেপ প্রশাসনের। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে এক বেআইনি ওষুধের দোকানে হানা দিয়ে নিষিদ্ধ করেক্স ফেনসিডিল সহ দোকানদারকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের হরিশচন্দ্রপুর থানার অন্তর্গত বারদুয়ারী এলাকায়। ধৃত ব্যক্তির নাম তজিবুর রহমান (২৩)। বাড়ি হরিশ্চন্দ্রপুরের মালিওর-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত রাঘবপুর এলাকায়। তার দোকান থেকে প্রায় ১১৫ বোতল নিষিদ্ধ ওই ওষুধ বাজেয়াপ্ত করেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ। যার বাজার দর আনুমানিক কুড়ি হাজার টাকা। ধৃত ব্যক্তিকে সোমবার চাঁচল মহকুমা আদালতে পেশ করা হয়েছে।

জানা গেছে দীর্ঘদিন ধরে ওই ব্যক্তি লাইসেন্স ছাড়াই রমরমিয়ে দোকান চালাত।যেখান থেকে বিক্রি হতো নিষিদ্ধ বিভিন্ন ওষুধ। স্থানীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে যে শুধু ওই দোকান নয় এরকম আরো দোকান যেখানে সেখানে ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে উঠছে।যেগুলো চলছে বেআইনি ভাবে। মাদক আসক্ত হচ্ছে এলাকার যুব সমাজ। সাথে প্রশ্ন উঠছে প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে। স্বাস্থ্য দপ্তরের চোখ এড়িয়ে কিভাবে চলছে এই ধরনের দোকান? এতদিন কি করছিল প্রশাসন? প্রশ্ন তুলছে সচেতন এলাকাবাসী।

হরিশ্চন্দ্রপুর থানার আইসি সঞ্জয় কুমার দাস জানান বেআইনিভাবে সেই ওষুধের দোকান চলছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ ওখানে হানা দেয়। দোকান থেকে ১১৫ বোতল করেক্স বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।দোকানের মালিক কে গ্রেফতার করা হয়েছে আজ চাঁচল মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে। মালদা ড্রাগ কন্ট্রোল অফিসে গোটা ঘটনা জানানো হয়েছে।

উত্তর বাংলা