বুনিয়াদপুর কৃষি দপ্তর এর পক্ষ থেকে আতমা প্রকল্পের অধীনে বেশ কয়েকজনকে কৃষককে কুল গাছের চারা বিতরণ করা হয়েছিল সেই সমস্ত জায়গা গুলি ঘুরে দেখলেন ব্লক প্রশাসনিক আধিকারিকরা

বুনিয়াদপুর কৃষি দপ্তর এর পক্ষ থেকে আতমা প্রকল্পের অধীনে বেশ কয়েকজনকে কৃষককে কুল গাছের চারা বিতরণ করা হয়েছিল সেই সমস্ত জায়গা গুলি ঘুরে দেখলেন ব্লক প্রশাসনিক আধিকারিকরা

বুনিয়াদপুর কৃষি দপ্তর এর পক্ষ থেকে আতমা প্রকল্পের অধীনে বেশ কয়েকজনকে কৃষককে কুল গাছের চারা বিতরণ করা হয়েছিল সেই সমস্ত জায়গা গুলি ঘুরে দেখলেন ব্লক প্রশাসনিক আধিকারিকরা। এদিন সেখানে উপস্থিত ছিলেন বংশীহারী পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি রিনা রায়, সহ-সভাপতি গণেশ প্রসাদ, এছাড়াও কৃষি দপ্তরের আধিকারিকরা। মূলত আতমা প্রকল্পের অধীনে আম গাছ, কুল গাছ, নারকেল গাছ,সুকর ছানা এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের গাছ তুলে দেওয়া হয়েছিল কৃষকদের হাতে। সেই সমস্ত এলাকাগুলি আজ ঘুরে দেখলেন বংশীহারী ব্লক প্রশাসনের আধিকারিকরা।

এ বিষয়ে বংশীহারী পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি গণেশ প্রসাদ জানিয়েছেন,আমরা বুনিয়াদপুর কৃষি দপ্তর থেকে আতমা প্রকল্পের অধীনে বেশকিছু বেনেফিশিয়ারির হাতে আম, নারকেল,আপেল কুল গাছ,শুকর ছানা কৃষকদের বিলি করা হয়েছিল। মূলত সেই সব কাজগুলি কৃষকরা কিভাবে যত্ন করে বড় করে তুলেছেন বা আদৌ সেগুলিকে বাঁচিয়ে রাখতে পেরেছেন কিনা সেই জন্য আমরা আজকে পরিদর্শন করে আসলাম।
এ বিষয়ে এক কৃষক সীমান্ত প্রামানিক জানিয়েছেন, ব্লক প্রশাসনের আধিকারিকরা যেভাবে আমাদের প্রতিনিয়ত সাহায্য করে চলেছে তাতে আমরা ভীষণ ভাবে লাভবান হচ্ছি। আমরা চাই আগামী দিনে যাতে ব্লক প্রশাসনের আধিকারিকরা এভাবেই কৃষকদের পাশে থাকে।
এ বিষয়ে অভিজিত কুণ্ডু জানিয়েছেন, আজকে আমরা বংশীহারী বেশ কিছু জায়গায় কৃষকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পরিদর্শন করলাম পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সাহেবের সঙ্গে, ঘুরে দেখলাম কিভাবে কৃষকরা সরকারি সুবিধা পেয়ে উপকৃত হচ্ছেন।

দক্ষিণ বাংলা